,

সর্বশেষ :
সাবেক সচিব ও ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান বজলুল করিম ও তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত রাতের আঁধারে দরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দিলো ‘মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ মন্দিরের সামনে গাঁজা খেতে নিষেধ করায় প্রতিমা ভাংচুর বড় ধরণের করোনা ঝুঁকিতে রাজবাড়ী বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের ১১০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ বসন্তপুর ইউনিয়নের ৮০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ হতদরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন প্রবাসীরা করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু, দুই বাড়ি লকডাউন করলেন এসিল্যান্ড রাজবাড়ীর করোনা যোদ্ধা চিকিৎসকদের N95 মাস্ক দিলেন সাবেক জেলা জজ ‘আসমা আসাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন’-এর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণ

করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু, দুই বাড়ি লকডাউন করলেন এসিল্যান্ড

News

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর ভাজনচালা এলাকায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে অংকন দত্ত (‌১৪) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) সকালে নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। সে ভাজনচালা এলাকার বিপ্লব দত্তের ছেলে।

এ ঘটনার পর অংকনের বাড়িটি লকডাউন করে দিয়েছেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুর রহমান। একইসঙ্গে অংকনের বাড়ির লোকজনের শরীরের নমুনা এবং অংকনের মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘গত ১৮ মে জ্বর, কাশি ও ঠান্ডায় আক্রান্ত হয়ে অংকন দত্ত সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসে। ওইসময় সে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসকের ব্যাবস্থাপত্র নিয়ে বাড়ি ফিরে যায়। এরপর থেকে সে বাড়িতে অবস্থান করে সেখানেই চিকিৎসাসেবা নিচ্ছিলো। বৃহস্পতিবার ভোরে তার অবস্থার অবনতি হলে সকাল ৭টার দিকে পরিবারের লোকজন তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেসময় হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আবুল কালাম আজাদ অংকনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।’

রাজবাড়ী সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুর রহমান বলেন, ‘করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া অংকনের বাড়িটি লকডাউন করা হয়েছে। একইসঙ্গে অংকনের মরদেহের নমুনা এবং তার পরিবারের সদস্যদের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়া, শহরের ধুনচি এলাকায় আ. হালিম নামে করোনা পজিটিভ এক ব্যক্তির বাড়িও লকডাউন করা হয়েছে। তার পরিবারের সদস্যদের শরীরের নমুনাও সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।’

অংকন এবং আ. হালিম দু’জনের পরিবারের সদস্যদেরই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আশেপাশের মানুষদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে বলেও জানান এসিল্যান্ড আরিফুর রহমান।

বাড়ি দু’টি লকডাউন করার সময় সদর থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম ও সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি উপস্তিত ছিলেন।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর