কালুখালী উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থী কাজী সাইফুল বিজয়ী

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৯:৪৪ অপরাহ্ণ ,১৯ মে, ২০১৪ | আপডেট: ৯:৫০ অপরাহ্ণ ,১৯ মে, ২০১৪
পিকচার

রাজবাড়ি নিউজ  : :  রাজবাড়ী জেলার নবগঠিত কালুখালী উপজেলা পরিষদের প্রথম নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ও মাঝবাড়ী ইউপির চেয়ারম্যান কাজী সাইফুল ইসলাম নির্বাচিত এবং ভাইস চেয়ারম্যানের ২টি পদে জামায়াত ও বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।


ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী, কালুখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মাঝবাড়ী ইউপির চেয়ারম্যান কাজী সাইফুল ইসলাম(আনারস) প্রতীকে ২৯হাজার ৪২২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নূরে আলম সিদ্দিকী হক(মোটর সাইকেল) প্রতীকে পেয়েছেন ১৯হাজার ১৪১ ভোট। উভয়ের ভোটের ব্যবধান ১০ হাজার ২৮১টি। চেয়ারম্যান পদে অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে বিএনপি সমর্থিত লায়ন এডঃ আব্দুর রাজ্জাক খান(দোয়াত-কলম) প্রতীকে ১৭হাজার ৯৬৫ এবং বিএনপির বিদ্রোহী কে.এম আইনুল হাবীব(ঘোড়া) প্রতীক ৭৯ ভোট পেয়েছেন। 


ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী এডঃ মোঃ সিদ্দিকুর রহমান। টিউবওয়েল প্রতীকে তিনি ৩২হাজার ৮৯০ ভোট পেয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগ সমর্থিত দেওয়ান আরাফাত হোসেন(তালা) প্রতীকে পেয়েছেন ৩১হাজার ৩৭৪ ভোট। উভয়ের ভোটের ব্যবধান ১হাজার ৫১৬টি। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী শারমিন আক্তার টুকটুকি। তিনি হাঁস প্রতীকে পেয়েছেন ৩৫হাজার ৩২৫ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামীলীগ সমর্থিত ডলি সরকার(কলস) প্রতীকে পেয়েছেন ২৯হাজার ৬৮৫ ভোট। তাদের দু’জনের ভোটের ব্যবধান ৫হাজার ৬৩০টি। 


গতকাল ১৯ মে ভোট গ্রহন ও গণনা শেষে এ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও কালুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদ ১০টার দিকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।
এরআগে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নির্বাচনে মোট ৪৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হয়। পুলিশ ও আনসার-ভিডিপি সদস্যদের পাশপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে র‌্যাব, সেনা বাহিনী ও বিজিবি সদস্যরাও নির্বাচন চলাকালে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করেন। জেলা প্রশাসক মোঃ হাসানুজ্জামান কল্লোল, পুলিশ সুপার মোঃ রেজাউল হক,পিপিএম(সেবা) এবং রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) গোপাল চন্দ্র দাসসহ জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তাগণ নির্বাচন পর্যবেক্ষণ ও বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। 


উল্লেখ্য, ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত কালুখালী উপজেলার নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ৫৭৫জন পুলিশ সদস্য, ৬০জন সেনা সদস্য, ৭২জন বিজিবি সদস্য, ৪৮জন র‌্যাব সদস্য, ৪৫জন আরআরএফ, ৫০জন আর্মড ফোর্স এবং ৫১৬জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করে। এ ছাড়াও ৪৩টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ৪৩জন প্রিজাইডিং অফিসার, ২৯৭জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ৫৯৪জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করে।

রাজবাড়ি নিউজ ২৪.কম

আপডেট /২০মে ২০১৪ /৩.৩৯  এ.এম/  স্বপ্ন 


এই নিউজটি 1638 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments