কেরানীগঞ্জে বালু চরের মধ্যে পুঁতে রাখা গার্মেন্টেস শ্রমিক ফারুকের লাশ ২৩ দিন পর পুনঃদাফন

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৫:৩৫ অপরাহ্ণ ,২০ জুন, ২০১৪ | আপডেট: ৫:৩৭ অপরাহ্ণ ,২০ জুন, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকার কেরানীগঞ্জে দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বড় চর বেনীনগর (মাইছাঘাটা) এলাকার ফারুক (২০)-এর লাশ ২৩ দিন পর নিজ এলাকা রাজবাড়ীতে পুনরায় দাফন করা হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে রাজবাড়ী শহরের ড্রাই-আইস ফ্যাক্টরি এলাকার কিশলয় প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নামাজে জানাজা শেষে ভবানীপুর পৌর গোরস্থানে ফারুকের লাশ দাফন করা হয়।

এর আগে তার লাশ উদ্ধার করে আঞ্জুমান মফিদুলের সহযোগিতায় বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করেছিলেন কেরানীগঞ্জ থানার পুলিশ। গত ২৭ মে সন্ধ্যায় ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জের একটি চরে বালুর মধ্যে পুঁতে রাখা অবস্থায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

বড় চর বেনীনগর গ্রামের আব্দুল গফুর মোল্লার ছেলে ফারুক মোল্লা(২০) গত ২৪ মে তার বড় ভাই জাফর মোল্লার ঢাকার লালবাগের ভাড়া বাসায় বেড়াতে যায়। পরদিন ২৫ মে দুপুরের পর মোবাইলে ফোন পেয়ে সে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। তারপর থেকে সে নিঁখোজ ছিল। জাফর মোল্লার দাবী, ঘটনার সাথে ফারুকের ৩ বন্ধু বড় চর বেনীনগরের শাজাহান, সোহেল ও ঠান্ডু জড়িত। ওরাই ফারুককে ফোন করে তার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। ওই ঘটনায় ২৭ মে তিনি লালবাগ থানায় একটি জিডি করেন।

 

 

আপডেট : শুক্রবার ২০ জুন,২০১৪/ ১১:৩০ পিএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1162 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments