,

সর্বশেষ :
সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত রাজবাড়ীতে বিএনপি’র ২৭ নেতাকর্মী কারাগারে

পাঁচটি কথা যা কখনই ফেসবুকে শেয়ার করবেন না

News

অনলাইন ডেস্ক : ফেসবুক সকলের জীবনেরই অংশ হয়ে গেছে৷ একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগেরই এরটি সবচেয়ে ভালো মাধ্যম৷ এর মাধ্যমেই আমরা আমাদের বিভিন্ন কথা সকলের সঙ্গে শেয়ার করি৷ বেশিরভাগ লোকই মনে করেন তারা যা শেয়ার করছেন সেগুলি নিজের বন্ধুদের জন্য, কিন্তু অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে অন্য কেউ এটি পড়ছে কিনা তা জানা যায় না৷ এই কারণেই পাঁচটি কথা এমন রয়েছে যা কখনই ফেসবুকের স্টেটাসে শেয়ার করবেন না৷

নিজের ও পরিবারের পূর্ণ জন্ম তারিখ
জন্মদিনের দিন ফেসবুকে প্রত্যেকেই হাজারো শুভেচ্ছা বার্তা পান যা সত্যিই মন ভালো করে দেয়৷ কিন্তু জানেন কি নিজের জন্ম তারিখ ফেসবুকে শেয়ার করে আপনি আপনার একটি গোপন তথ্য সাইবার চোরদের জানিয়ে দিচ্ছেন? যদি ফেসবুকে নিজের জন্ম তারিখ লিখতেই হয় তবে জন্ম সাল একেবারেই লিখবেন না৷
রিলেশনশিপ স্টেটাস
আপনি রিলেশনশিপে আছেন কিনা তা ফেসবুকে একেবারেই শেয়ার করবেন না৷ এতে কেউ যদি আপনার ওপর নজর রেখে থাকে তবে সে জেনে যাবে আপনি কখন সিঙ্গেল রয়েছেন এবং কখন রিলেশনশিপে রয়েছেন৷ এতে আপনার বিপদের সম্ভাবনা বাড়তে পারে৷
নিজের বর্তমান অবস্থান
বেশকিছু লোক প্রত্যেকটা জিনিস ফেসবুকে আপডেট করেন৷ তারা বেশির ভাগ সময়েই কোথায় রয়েছেন তাও লোকেশনের সঙ্গে ট্যাগ করে দেন৷ এতে সকলেই জানতে পারেন আপনি কখন কোথায় রয়েছেন৷ যদি আপনি জায়গায় নাম ট্যাগ করে লিখে দেন যে ছুটিতে যাচ্ছেন তবে আপনার ক্ষতি করার কথা যদি কেউ ভেবে থাকে তবে সে আপনার সম্পর্কে গোটা তথ্যটাই পেয়ে যাবে৷ নিজের ছুটির কথা ও ছুটির ছবি অবশ্যই ফেসবুকে শেয়ার করুন কিন্তু তা অবশ্যই বাড়ি ফেরার পর৷
আপনি বাড়িতে একা আছেন
অভিভাবকেরা অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যাতে আপনার সন্তান ফেসবুকে বাড়িতে একা থাকার কথা যেন কখনই না শেয়ার করে৷ এতে অজ্ঞাত পরিচয়ের লোকেরা এই খবরটি পেয়ে যাবে এবং তারা এই সুযোগের দুর্ব্যবহার করতেই পারে৷
নিজের বা সন্তানের ছবি তাদের নামের সঙ্গে ট্যাগ করা
বেশির লোকই তাদের সন্তানের ছবি নাম দিয়ে ট্যাগ করে পোস্ট করেন৷ কিছু অভিভাবক সন্তানের জন্মের পরই তার ছবি হাসপাতালের ঠিকানা লিখে স্টেটাস আপডেট করেন৷ বন্ধু, আত্মীয়দের ছবিও অনেকেই পোস্ট করেন ও ট্যাগ করেন৷ এটা একেবারই ঠিক নয়৷ ফেসবুকে ছবি আপলোড করলেও চেষ্টা করবেন সেটি অন্য কাউকে ট্যাগ না করার৷- ওয়েবসাইট

 

 

আপডেট : সোমবার ৭ জুলাই,২০১৪/ ১১:৩৩ পিএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর