,

সর্বশেষ :
সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত রাজবাড়ীতে বিএনপি’র ২৭ নেতাকর্মী কারাগারে

সদ্যজাত ৬ শিশুকে হত্যা করেছেন মা

News

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ড্যারেন ওয়েস্ট জানতেন না আরো ছয় সন্তানের জনক হয়েছিলেন তিনি৷ স্ত্রী মেগান সন্তান জন্ম দেয়ার কথা গোপন করে তাদের হত্যা করেন৷ পুলিশের কাছে নিজেই স্বীকার করেছেন সে কথা৷
যুক্তরাষ্ট্রের এই ঘটনাটি একেবারে থ্রিলার ছবির মতো৷ মেগানের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার বেশ কিছুদিন পর ড্যারেন ওয়েস্ট নিজের ঘরেই খুঁজে পান সদ্যোজাত শিশুর লাশের অবশিষ্টাংশ৷ শুরু হয় পুলিশি তদন্ত৷ একে একে খুঁজে পাওয়া যায় ছয়টি সদ্যোজাত শিশুর লাশ৷ নতুন ছেলেবন্ধুর সঙ্গে জীবন শুরু করা মেগানের দিকেই ওঠে সন্দেহের আঙুল৷ পুলিশি জেরার মুখে ৩৯ বছর বয়সি মেগান স্বীকার করেন ছয়টি শিশুর হত্যাকারী তিনি৷ সেই থেকে তিনি হত্যা মামলার আসামি হিসেবে কারাবন্দি৷ পুলিশের চোখে তখন তিনি সিরিয়াল ইনফ্যান্ট কিলার, অর্থাৎ ধারাবাহিক শিশু হত্যাকারী৷
কিন্তু শিশুগুলোর ডিএনএ পরীক্ষা থেকে বেরিয়ে এসেছে আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ দেখা গেছে প্রতিটি শিশুরই মা মেগান হান্টসম্যান এবং বাবা ড্যারেন ওয়েস্ট৷ মেগান জানিয়েছেন, ১৯৯৬ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে জন্মানো এই শিশুদের জন্মের পরপরই তিনি মেরে ফেলেন৷ ভূমিষ্ঠ হবার পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে কিংবা নাক-মুখ চেপে দম বন্ধ করে মেরে ফেলার পর পুরোনো তোয়ালে, জামা বা প্লাস্টিকের ব্যাগে জড়িয়ে ইউটা’র প্লিজেন্ট গ্রোভ-এর বাড়ির গ্যারেজ বা আশপাশের কোনো জায়গায় লুকিয়ে রাখেন তিনি৷
৮ বছর নিরাপদেই ছিলেন মেগান৷ কিন্তু সাবেক স্বামী ড্যারেন ওয়েস্ট প্লিজেন্ট গ্রোভ পুলিশকে এক শিশুর লাশ খুঁজে পাওয়ার খবর জানানোর পর একে একে বেরিয়ে আসে অনেক রোমহর্ষক তথ্য৷ মেগান জানান, ১৯৯৬ সালের আগে থেকেই তিনি মদ্যপানে ভীষণ আসক্ত৷ এ কারণে মানসিক বৈকল্যও দেখা দিয়েছিল তাঁর৷ সন্তান গর্ভে এলেই মনে হতো, সন্তান লালন-পালন করতে গেলে আর নেশা করা হবেনা৷ তাই গর্ভে সন্তান এলেও তা সবার কাছে সুকৌশলে গোপনে রাখতেন এবং সন্তান প্রসব করার পরই নিজ হাতে তাদের হত্যা করতেন৷
মেগান স্বীকার করেন ছয়টি শিশুর হত্যাকারী তিনি।
যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক সাড়া জাগানো এ ঘটনা বিশ্লেষণ করে একটি জট এখনো খুঁজে পাচ্ছেনা পুলিশ৷ ড্যারেন-মেগান দম্পতির তিনটি সন্তান এখনো বেঁচে আছে৷ তিনজনই মেয়ে৷ তাঁদের বয়স ১৪, ১৮ এবং ২০ বছর৷ অর্থাৎ একজনের জন্ম ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে, যখন সন্তান জন্ম দিয়েই হত্যা করে ফেলছিলেন মেগান৷ এখন কারণটা এখনো জানতে পারেনি পুলিশ৷
অতিরিক্ত মদ্যপানের ফলে মেগান হান্টসম্যানের মানসিক সুস্থতা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে৷ আগামী ২১ শে জুলাই আদালতে হাজির হতে হবে তাঁকে৷ মামলার শুনানিতে অংশ নেয়ার মতো মানসিক সুস্থতা তাঁর আছে কিনা সেদিন তা যাচাই করবে আদালত৷ ( সূত্র: ডিডব্লিউ, রয়টার্স )

 

আপডেট : বৃহস্পতিবার ১০ জুলাই,২০১৪/ ০২:২২ পিএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর