,

পাংশায় অপহরনের ২দিন পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার : থানায় মামলা

News

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী জেলার পাংশা শহরের নারায়নপুর এলাকার স্কুল ছাত্রী (১৫)কে অপহরনের ২দিন পর পুলিশ উদ্ধার করেছে। গত ১০ জুলাই সকাল ১১টার দিকে দাদা বাড়ী থেকে নিজ বাড়ীতে আসার পথে মৈশালা কবরস্থানের সামনে থেকে অপহৃত হয়। অপহৃতা স্কুলছাত্রী ছান নারায়নপুর গ্রামের ছানোয়ার হোসেনের মেয়ে।

মামলা সুত্রে প্রকাশ, ওই ছাত্রী পাংশা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীতে পড়াশুনা করতো। স্কুলে আসা যাওয়ার পথে একই গ্রামের কাজী সেলিমের ছেলে কাজী আবু সালেহ ওরফে সৈকত(২৫) তাকে উত্যক্ত করতো। বিষয়টি সৈকতের পরিবারকে জানালে সে ক্ষিপ্ত হয় এবং ছানকে অপহরনের হুমকী দেয়। গত ৯ জুলাই পিতার সাথে সে নিভা এনায়েতপুর গ্রামে তার দাদা বাড়ীতে বেড়াতে যায়। সেখানে তার পিতা তাকে রেখে ওই দিনই চলে আসে। পরদিন সকালে সে দাদা বাড়ী থেকে নিজ বাড়ীতে আসার পথে মৈশালা কবরস্থানের সামনে পৌছালে সৈকত একই গ্রামের কাজী পলাশ (২৮) ও কাজী শিমুল(২৭) তাকে জোর পূবর্ক মাইক্রোবাসযোগে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ছানের মা গত ১২ই জুলাই পাংশা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৭/৩০ ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। পাংশা থানার মামলা নং-১১। মামলায় উল্লেখিতরা ছাড়াও কাজী সেলিম(৫৫), কাজী মহর(৫২) ও কাজী মতিন (৫৬)কে আসামী করা হয়। মামলা দায়েরের পর গত ১২ জুলাই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে পাংশা থানার পুলিশ। তবে এ ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি।

 

 

আপডেট : সোমবার ১৪ জুলাই,২০১৪/ ০৪:৪৪ এএম/ আশিক

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর