গোয়ালন্দ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী গ্রেপ্তার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:৩৪ অপরাহ্ণ ,১৬ জুলাই, ২০১৪ | আপডেট: ৭:৩৪ অপরাহ্ণ ,১৬ জুলাই, ২০১৪
পিকচার

গোয়ালন্দ : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী আফাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে আব্বাসকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ১৬জুলাই বুধবার বিকেলে উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, আওয়ামী লীগ নেতার বসত-বাড়িতে হামলার মামলায় এই জামায়াত নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গোয়ালন্দঘাট থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোয়ালন্দ উপজেলার কদমতলী গ্রামের প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মো. জালাল শেখ (৬০)। একই গ্রামের স্কুলশিক্ষক ও গোয়ালন্দ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী আফাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে আব্বাস। দীর্ঘদিন যাবত তাদের দুই পরিবারের মধ্যে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। গত ১৪ ফেব্রুয়ারী দুপুরে আব্বাসের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত রামদা, চাপাতি, চাইনিজ কুঁড়ালসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জালাল শেখের বসত-বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় আব্বাস নিজ হাতে উপস্থিত পরিবারের লোকজনকে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে জখম করে। এতে জালাল শেখ, তার মা সালেহা বেগম, স্ত্রী রোকেয়া বেগম ও মেয়ে জামাই লালচাঁদ শেখ মারাত্মকভাবে আহত হয়। এই ঘটনার বিচার চেয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় জালাল শেখের ছেলে মো. আসাদুল শেখ বাদী হয়ে জামায়াত নেতা আফাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে আব্বাসকে প্রধান আসামি করে ১১ জনের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর আজ বুধবার বিকেল ৫টায় উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়ন এলাকা থেকে ওই মামলার পলাতক প্রধান আসামি আফাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে আব্বাসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আফাজ উদ্দিন মোল্লা ওরফে আব্বাসকে গ্রেপ্তার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোয়ালন্দঘাট থানার এসআই বাসার মোল্লা।

 

 

আপডেট : বৃহস্পতিবার ১৭ জুলাই,২০১৪/ ০১:৩৪ এএম/ আশিক


এই নিউজটি 1139 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments