,

সর্বশেষ :
রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য বিএনপির মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন অ্যাড. খালেক ও আসলাম সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত

দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীদের মধ্যে বিরাজ করছে উচ্ছেদ আতঙ্ক

News

গোয়ালন্দ প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের কান্দাপাড়া যৌনপল্লী উচ্ছেদ করার পর থেকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর যৌনকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে কান্দাপাড়া যৌনপল্লী থেকে উচ্ছেদ হওয়া অনেক যৌনকর্মী দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে এসে আশ্রয় নিয়েছে। গত ১২ জুলাই টাঙ্গাইল শহরের কান্দাপাড়া যৌনপল্লী উচ্ছেদ করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে প্রতিদিন সেখানকার যৌনকর্মীদের অনেকেই দৌলতদিয়া পল্লীতে এসে আশ্রয় নিচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ছয় দিনে টাঙ্গাইলের শতাধিক যৌনকর্মী দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে এসেছে। তাদের মুখে ওই যৌনপল্লী উচ্ছেদ ঘটনার বিবরণ শুনে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর যৌনকর্মীদের মধ্যে অজানা এক আতঙ্ক বিরাজ করছে। পল্লীর বাড়িওয়ালী শাহেদা বেগম বলেন, ‘টাঙ্গাইলের ঘটনা শোনার পর থেকে আমি ঘুমাতে পারছি না। সারক্ষণ মনে হয় এই বুঝি আমাদেরও উচ্ছেদ করা হবে।’ পল্লীর আমেনা বাড়িওয়ালীর ভাড়াটিয়া যৌনকর্মী সাথী জানান, কেউ পেটের দায়ে, কেউ দালালের খপ্পরে পড়ে এই পেশা গ্রহণে বাধ্য হয়েছে। তবে ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বিকল্প পথ না থাকায় যৌনপেশা ছেড়ে তারা এখন অন্য কোনো পেশায়ও যেতে পারছে না।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল খালেক বলেন, ‘বর্তমান দৌলতদিয়া পল্লীর যৌনকর্মীরা সম্পূর্ণ নিরাপদভাবে বসবাস করছে। এখানে কোনো উচ্ছেদ আতঙ্ক নেই। তবে এলাকার নিরাপত্তাসহ যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ সার্বক্ষণিকভাবে নজরদারি করছে।’

 

 

আপডেট : রবিবার ২০ জুলাই,২০১৪/ ০২:১৮ এএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর