,

সর্বশেষ :
সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত রাজবাড়ীতে বিএনপি’র ২৭ নেতাকর্মী কারাগারে

বালিয়াকান্দির ইন্দুরদী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি সিদ্দিকের বিরুদ্ধে কোর্টে মামলা

News

বালিয়াকান্দি প্র্রতিনিধি : স্কুল ফান্ডে টাকা জমা না দিয়ে অবৈধভাবে দাতা সদস্য হয়ে ১টি টিউবওয়েল, ৮টি বড় বড় মেহগনি গাছ ও বিদ্যালয়ের সম্পত্তি বিক্রি এবং অনভিজ্ঞ শিক্ষক নিয়োগ করে শিক্ষারমানকে নিম্ন পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার কারণে বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের ইন্দুরদী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি এবিএম সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে গুরুতর অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ১০ জুলাই আদালতে মামলা দায়ের করেন আতিয়ার রহমান মোল্যা।

মামলায় ও সরেজমিনে জানাযায়, ইন্দুরদী উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠালগ্নে আতিয়ার রহমান মোল্লার পিতা ও পিতামহ ১৯৩৫ সালে সম্পত্তি দান করে প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তোলেন। তখন থেকে ধীরে ধীরে প্রাথমিক, পরে জুনিয়র এরপর মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়ে রূপান্তর হয়। একই গ্রামের এবিএম সিদ্দিকুর রহমান ওরফে সিদ্দিক অবৈধভাবে স্কুলের দাতা সদস্য হয়ে সভাপতি পদে থাকে। এ পদে থেকে সে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অনুমতি ছাড়াই বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠালগ্নের ১টি টিউবওয়েল, ৮টি বড় বড় মেহগনি গাছ ও বিদ্যালয়ের খেলার মাঠের প্রায় ৭৪ শতাংশ মূল্যবান সম্পত্তি রেজুলেশন ছাড়াই বিক্রি করে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নেয়। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হওয়ার জন্য কিছু শিক্ষকদের যোগসাজসে ৬৪ হাজার ৯ শত ৮৪ টাকার ভূয়া রশিদ স্কুলে জমা দিয়ে অবৈধভাবে দাতা সদস্য হিসাবে নিজের নাম লেখায়। এ ঘটনা নিয়ে বহুবার তদন্ত হলেও রহস্যজনক কারণে তা ধামাচাপা দিয়ে রাখে কর্তৃপক্ষ। এবিএম সিদ্দিকুর রহমান এখানে থেমে থাকেননি, তিনি বিভিন্ন সময়ে বিদ্যালয় উন্নয়ন কাজের কথা বলে কিছু অনভিজ্ঞ শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার মানকে নিম্নপর্যায়ে ঠেলে দিয়েছেন। ফলে গুটি কয়েক মানসম্মত শিক্ষকের কারণে দীর্ঘদিনের এ প্রতিষ্ঠানটি এখনও টিকে আছে।

এবিএম সিদ্দিকুর রহমান কর্তৃক ইন্দুরদী উচ্চ বিদ্যালয়ে উল্লেখিত গুরুতর অনিয়ম ও দুর্নীতি ঠেকাতে বিদ্যালয় ও এলাকাবাসীর স্বার্থে আতিয়ার রহমান মোল্যা বালিয়াকান্দি সহকারী জজ আদালতে দেওয়ানী ৪১/২০১৪ দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত এবিএম সিদ্দিকুর রহমানকে আগামী ৭ই আগষ্ট প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রসহ হাজিরের নির্দেশ দিয়েছেন।

 

 

আপডেট : বুধবার ২৩ জুলাই,২০১৪/ ১২:৩২ পিএম/ আশিক

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর