,

রাজবাড়ীর জৌকুড়ায় মোজাহার হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প

News

p-1স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের জৌকুড়ায় মোজাহার হোসেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে হত দরিদ্র ও অসহায় গরীব মানুষের মধ্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছে বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা। ২দিনব্যাপী এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে শুধু চিকিৎসা সেবাই করা হয়নি, প্রদান করা হয়েছে বিনামুল্যে ওষুধপত্রও। আর এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের সার্বিক সহযোগিতা করেন মোজাহার হোসেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও মরহুম মোজাহার হোসেনের সুযোগ্য কন্যা সৌদী প্রবাসী ডাঃ বতুল রহমান।

গতকাল ২জুলাই সকালে শান্তির প্রতিক পায়রা উড়িয়ে এ ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন রাজবাড়ী সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি চৌধুরী কামরুন নাহার লাভলী।

এ উপলক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি চৌধুরী কামরুন নাহার লাভলী বলেন, গরীব অসহায় মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধপত্র বিতরণ এটা নিঃসন্দেহে একটি মহতী উদ্যোগ। আমরা যারা একটু সামর্থ্যবান তারা নিজের গ্রাম ও দেশকে ভুলে যায়। নিজেকে ছাড়া অন্য কিছুই ভাবতে পারি না। এখানে এসে বুঝতে পারলাম আমার এই বোন (ডাঃ বতুল রহমান) বাংলাদেশে থাকে না তারপরও সে এই গ্রামকে ভোলে নাই। তার এই উদ্দীপনা, চিন্তা ভাবনা, চেতনা, দেশত্ববোধ নিজের মষত্বকে জাগ্রত করে তোলে। আমরা সবাই যদি এভাবে ভাবি এবং এই চিন্তা চেতনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি তাহলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হবে।

তিনি আরো বলেন, আমার গ্রামের একটা ছেলেকেও যদি আমি প্রতিষ্ঠিত করতে পারি তাহলে আমার জীবন সার্থক হবে। এই জিনিসটা সবাইকে মনে রাখতে হবে। এই ধরণের প্রতিষ্ঠান প্রত্যেক গ্রামে গড়ে উঠা দরকার।
মোজাহার হোসেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি প্রকৌশলী মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কাওছারুল ফেরদৌসের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চন্দনী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক শিকদার ও মোজাহার হোসেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ বতুল রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ড. আব্দুল সালাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মোজাহার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সৌদী আরবের বাদশাহ ফাহাদ সেন্ট্রাল হাসপাতালের শিশু সার্জারী ডাঃ বতুল রহমান বলেন, তিনি তার বাবার নামেই এই ফাউন্ডেশনটি প্রতিষ্ঠিত করেছেন। আমরা মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীদেরকে বৃত্তি প্রদান করছি। যাতে তার মধ্যে পড়াশুনার আগ্রহ আরো বেড়ে যায়। আমরা গরীব শিক্ষার্থীদের মধ্যে আর্থিক সহযোগীতা করছি যাতে সে মানুষের মতো মানুষ হতে পারে। একজনের টাকা পয়সা থাকতে পারে কিন্তু প্রকৃত মানুষ হওয়াটা আলাদা কথা। আমরা প্রতি বছরই এই ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে মেধাবী ছাত্রদের মাঝে বৃত্তি প্রদানের পাশাপাশি বস্ত্র প্রদান, শীতবস্ত্র বিতরণ, চিকিৎসা ও বিনামূল্যে ওষুধপত্র বিতরণ করে আসছি। এছাড়াও দাবা প্রতিযোগীতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরন এবং সার্টিফিকেট প্রদান করছি। তিনি বলেন, আমাদের আশা আছে অনেক বড় কিছু করার। আমাদের সবার ইচ্ছা আছে এখানে (মোজাহার ফাউন্ডেশনে) একটি হসপিটাল করার। অবশ্যই সেটা করবো। এ জন্য সবার সহযোগিতা দরকার। তিনি এমপি কামরুন নাহার চৌধুরীর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনি যদি সহযোগিতা করেন তাহলে আমরা অনেক কিছু করতে পারবো। গ্রামবাসীই এটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে ফ্রি ক্যাম্পে রোগী দেখেন সৌদী আরবের জিজানের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন ডাঃ মোখলেছুর রহমান, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন (সহকারী অধ্যাপক) ডাঃ আমজাদ হোসেন, সৌদী আরবের বাদশাহ ফাহাদ সেন্ট্রাল হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ বতুল রহমান, ঢাকা সাভার বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিশেষায়িত হাসপাতালের এম,বি,বি,এস ডাঃ শহীদুজ্জামান শাহীন ও একই হাসপাতালের এম,বি,বি,এস ডাঃ জাকিয়া শারমিন।

উল্লেখ্য, ২দিনব্যাপী ফ্রি ক্যাম্পে বিনামূল্যে ওষুধপত্র বিতরণের পাশাপাশি চক্ষু রোগীদের বিনামূল্যে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের সহযোগীতায় অপারেশন করা হবে।

 

 

আপডেট : রবিবার ৩ আগষ্ট,২০১৪/ ০৭:০৬ পিএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর