গণমাধ্যমকে খাঁচায় বন্দির পাঁয়তারা চলছে : বিএনপি

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ ,৪ আগস্ট, ২০১৪ | আপডেট: ৭:০৬ অপরাহ্ণ ,৪ আগস্ট, ২০১৪
পিকচার

ডেস্ক রিপোর্ট : জবাবদিহি ও দায়বদ্ধতার কথা বলে গণমাধ্যমকে সরকারি খাঁচায় বন্দির পাঁয়তারা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ। বলেছেন, সংবাদপত্র, সংবাদ সংস্থা অনলাইন নিউজ পোর্টাল, টেলিভিশন, রেডিওসহ গণমাধ্যমের সকল শাখাকে জবাবদিহি ও দায়বদ্ধতার আওতায় আনার জন্য সরকার বেশ কিছু আইন ও নীতিমালা প্রণয়ন করতে যাচ্ছে। টেলিভিশন বন্ধেও নাকি আইন হচ্ছে। আমরা মনে করি, বিভিন্ন আইন-নীতিমালা করে গোটা গণমাধ্যমকে তারা সরকারি খাঁচায় পুরতে চাইছে।

গতকাল নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। সরকারের দমননীতির সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, সংবিধানে কালো আইন সংযোজনের মাধ্যমে তারা জনগণের ওপর নিপীড়ন-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে শেখ হাসিনা দেশে দ্বিতীয় বাকশালি রাজত্ব কায়েম করেছেন। বিএনপি তীব্র গণআন্দোলনের দিকে যাচ্ছে মন্তব্য করে রিজভী আহমেদ বলেন, অপরাধপ্রবণ সরকার বেশি দিন ক্ষমতায় থাকলে রাষ্ট্রের প্রাণশক্তি বলে আর কিছুই থাকবে না। এদের একমাত্র প্রতিষেধক হচ্ছে- ব্যাপক গণআন্দোলনে তাদের উৎখাত করা। আমরা সেদিকে এগিয়ে যাচ্ছি। আন্দোলন রুখতে সরকার সারা দেশে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের নতুন করে গ্রেপ্তার করছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ৫ই জান