৪৩তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসার গ্রীষ্মকালীন ফুটবল প্রতিযোগিতা : মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয় পদ্ম জোনে চ্যাম্পিয়ন

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ ,২১ আগস্ট, ২০১৪ | আপডেট: ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ ,২১ আগস্ট, ২০১৪
পিকচার

নিজস্ব প্র্রতিবেদক : ৪৩তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসার গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার রাজবাড়ী সদর উপজেলার পদ্ম জোনের ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা গতকাল ২০ আগস্ট বিকেলে মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।

ফাইনালে ট্রাইব্রেকারে মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয় ২-১ গোলে আলহাজ্ব আকবর আলী মর্জি উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। সদর উপজেলার এ টুনামেন্টের সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ এম.এ খালেক প্রধান অতিথি হিসেবে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের অধিনায়কের হাতে ট্রফি তুলে দেন।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ এম.এ খালেক বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি তোমাদেরকে খেলাধুলা শিখতে হবে। শুধু ফুটবলই নয়, ক্রিকেটসহ যে সমস্ত খেলা রয়েছে সেগুলোও তোমাদের খেলতে হবে এবং শিখতে হবে। শুধু পুথিগত বিদ্যার মধ্যে না থেকে তোমাদেরকে সাংস্কৃতিক, খেলাধুলা ও ধর্মীয় শিক্ষা শিখতে হবে। তোমাদের মধ্যে থেকে জাতীয় পর্যায়ের খেলোয়াড় বেরিয়ে আসবে। তিনি বলেন, তোমরা অবশ্যই মাদককে না বললে। ইভটিজিংকে না বলবে। মাদকের ভয়াল থাবা থেকে তোমরা অবশ্যই দূরে থাকবে। কারণ মাদক শুধু নিজেকেই না একটি পরিবারকে ধবংস করে ফেলে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ আলী ও আলহাজ্ব আকবর আলী মর্জি উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ মাহবুবুর রহমান।

মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও পদ্ম জোন প্রধান মোঃ জাকির হোসেন মোল্ল¬ার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে টুনামেন্টের বাছাই কমিটির আহবায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, আলহাজ্ব আকবর আলী মর্জি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যাণী রানী বৈদ্য সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। খেলা পরিচালনা করেন নিতিশ কুমার ভৌমিক, আবু জাফর ও শমসের।

উল্লেখ্য, গত ১৬ আগস্ট থেকে ১৮টি স্কুল ও মাদ্রাসা নিয়ে পদ্ম জোনে এ টুর্নামেন্ট শুরু হয়। নক আউট পদ্ধতিতে খেলে মূলঘর উচ্চ বিদ্যালয় ও আলহাজ্ব আকবর আলী মর্জি উচ্চ বিদ্যালয় ফাইনালে আসে। জোন পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন দলগুলো জেলা পর্যায়ের টুর্নামেন্টে অংশগ্রহন করবে।

 

আপডেট : বৃহস্পতিবার ২১ আগষ্ট,২০১৪/০৩:৪১ পিএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1172 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments