দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত বিএনপি নেতা বাবলু’র দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী আজ : দলীয়ভাবে মিছিল ও স্মরন সভার আয়োজন

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৪:৪৭ পূর্বাহ্ণ ,২৪ আগস্ট, ২০১৪ | আপডেট: ৪:৪৭ পূর্বাহ্ণ ,২৪ আগস্ট, ২০১৪
পিকচার

নিজস্ব প্র্রতিবেদক : রাজবাড়ী জেলা বিএনপির প্রাক্তন সদস্য, জেলা যুবদলের সাবেক আহবায়ক ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম সামসুল আলম বাবলুর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী আজ।

এ উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করা হয়েছে। কর্মসূচী সমূহের মধ্যে রয়েছে সকাল ১১ টায় ভবাণীপুর ২নং পৌর কবরস্থানস্থ শহীদ বাবলুর সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, কালো ব্যাজ ধারণ এবং বিকেল ৪টায় বিক্ষোভ মিছিল ও জেলা বিএনপি কার্যালয়ে স্মরন সভা। এ ছাড়াও পারিবারিকভাবে বাদ জোহর এতিমখানা জামে মসজিদে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, জমিজমা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে ২০১২ সালের ২৩শে আগষ্ট দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর পুলিশ ফাঁড়ির সন্নিকটে(অনুমান ২শ গজের মধ্যে) সাংবাদিক সানাউল্লাহ’র বাড়ীর সামনে রাস্তার উপর সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা বিএনপি নেতা এস.এম সামসুল আলম বাবলুকে ঘেরাও করে খুব কাছে থেকে এলোপাতারীভাবে গুলি করে হত্যা করে। এ সময় তিনি গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির মধ্যে পায়ে হেঁটে শহরের আজাদী ময়দান থেকে পালাগান শুনে বিনোদপুর এতিমখানা সংলগ্ন নিজ বাড়ীতে ফিরছিলেন।

এ হত্যার ঘটনায় নিহত বাবলুর ভাই শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ৭জনকে আসামী করে রাজবাড়ী থানায় রাজবাড়ী পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মীর এনাম আলী বাচ্চু, তার ভাই মীর বাবু, খায়রু, আরিফ মন্ডল, অনিক, রানা, আরিফ কুলিসহ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসী ও অস্ত্রধারীদের আসামী করে রাজবাড়ী থানার মামলা নং-৩০, তাং-২৫/৮/২০১২, ধারাঃ ৩৪১/৩০২/৩৪ দঃ বিঃ দায়ের করে।

মামলার পর রাজবাড়ী সদর থানার তৎকালীন সেকেন্ড অফিসার এস.আই ওয়াদুদ আলমকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়। গত ২ জুলাই তিনি কালুখালী থানায় বদলী হয়ে গেলে রাজবাড়ী থানার এস.আই জিল্লুর রহমানকে মামলাটির ২য় তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়।

মামলাটি সম্পর্কে জানতে চাইলে এস.আই ওয়াদুদ আলম বলেন, মামলাটিকে তিনি চার্জশীট দেয়ার পর্যায়ে রেখে এসেছেন। তার তদন্তকালে মামলার এজাহারনামীয় প্রধান আসামী পৌর কাউন্সিলর বাচ্চুসহ এজাহারনামীয় ও এজাহার বহির্ভূত মিলিয়ে মোট ১০জনকে গ্রেফতার করেন। তাদের মধ্যে কাউন্সিলর বাচ্চুসহ ২জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে। স্বীকারোক্তিতে বাবলু হত্যাকান্ডের বিষয়ে বিস্তারিত বিবরণ এবং হত্যাকান্ডের সাথে সরাসরি জড়িত এজাহার নামীয় কয়েকজনসহ এজাহার বহির্ভূত ৩/৪ জনের নাম প্রকাশ পেয়েছে।

মামলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজবাড়ী সদর থানার এস.আই জিল্লুর রহমান বলেন, মামলাটির তদন্ত কার্যক্রম সমাপ্ত হয়েছে। খুব শীঘ্রই চার্জশীট দেয়া হবে। চার্জশীট দেয়ার বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনাও সমাপ্ত হয়েছে। খুব শীঘ্রই ১২/১৩জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীটভূক্ত দাখিল করা হবে।
এদিকে বাবলু হত্যা মামলায় কারাবন্দী রাজবাড়ী পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মীর এনাম আলী বাচ্চুর হাইকোর্ট থেকে দেয়া জামিনের আদেশ স্থগিত করেছেন সুপ্রীম কোর্টের চেম্বার জজ আদালত। গত ২৪ জুলাই হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ বাবলু হত্যা মামলার প্রধান আসামী মীর এনাম আলী বাচ্চুর জামিন মঞ্জুর করে। সরকার পক্ষ সেই জামিনের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রীম কোর্টের আপীল বিভাগে লিভ টু আপীল দায়ের করে। গত ১৯ আগস্ট আপীলের বিভাগের চেম্বার জজ সেই জামিনের আদেশ স্থগিতের আদেশ প্রদান করে।

 

 

আপডেট : রবিবার ২৪ আগষ্ট,২০১৪/ ১০:৪৬ এএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1293 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments