,

বসন্তপুরে চাঁদা আদায় মামলায় ৫জনের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যু

News

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউপির শায়েস্তাপুর গ্রামের সংখ্যালঘু সীমান্ত শর্মার কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের ঘটনায় গতকাল ১লা সেপ্টেম্বর রাজবাড়ীর ১নং আমলী আদালতে ৫জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানার(ওয়ারেন্ট) আদেশ দিয়েছেন।

মামলা সুত্রে প্রকাশ, শায়েস্তাপুর গ্রামের সংখ্যালঘু সীমান্ত শর্মার কাছে পার্শ্ববর্তী বাজিতপুর গ্রামের শাহাবুদ্দিন মিয়া ওরফে সেলিম, মাসুম মিয়া, সুলতান মিয়া ও ফরিদ এবং মহারাজপুর গ্রামের তাইন শিকদার বেশ কিছুদিন ধরে ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল। গত ৩০ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টার দিকে সীমান্ত শর্মা উদয়পুর বাজার থেকে বাজার-সওদা করে বাইসাইকেলযোগে বাড়ী ফেরার পথে উদয়পুর কাঠালতলা নামক স্থানে পৌঁছালে সেলিম, মাসুম, সুলতান, ফরিদ ও তাইন তাৎক্ষনিকভাবে তার কাছে দাবীকৃত চাঁদার ৫০হাজার টাকা চায়। সীমান্ত শর্মা অস্বীকার করা সঙ্গে সঙ্গে তারা তাকে মারধর করতে থাকে। নিরূপায় হয়ে সীমান্ত শর্মা তার কাছে থাকা ৮হাজার টাকা তাদেরকে দিলে তারা সেই টাকা নিয়ে তখনকার মতো তাকে ছেড়ে দেয় এবং দাবীকৃত টাকার অবশিষ্ট ৪২ হাজার টাকা ১৫ দিনের মধ্যে পরিশোধের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

এ ঘটনায় সীমান্ত শর্মা বাদী হয়ে গতকাল ১লা সেপ্টেম্বর রাজবাড়ীর ১নং আমলী আদালতে উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে দন্ড বিধির ৩৪১/৩০৭/৩২৩/৩৮৬/৫০৬(২) ধারায় মামলা দায়ের করলে আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানার আদেশ দেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মামলার অন্যতম আসামী তাইন শিকদার মোবাইলে জানান, পূর্ব বিরোধের জেরে বসন্তপুর ইউপির চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা জাকির সরদার তার অনুগত সীমান্ত শর্মাকে দিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগে মামলাটি দায়ের করিয়েছে।

 

আপডেট : মঙ্গলবার সেপ্টেম্বর ২,২০১৪/ ১১:৩৯ এএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর