বালিয়াকান্দির শালমারায় আপন খালাতো ভাই কর্তৃক ৬ষ্ঠ শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রী গর্ভবতী : আদালতে মামলা রেকর্ড

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ৭:৩০ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : বালিয়াকান্দি উপজেলার শালমারায় আপন খালাতো ভাই কর্তৃক ৬ষ্ঠ শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রী (১৫) গর্ভবতী হওয়ার ঘটনায় আদালতে দায়েরকৃত মিসপিটিশনটি গত ৪ঠা সেপ্টেম্বর থানায় রেকর্ড হয়েছে। গত ১ লা ফেব্রুয়ারী বিকেলে ওই ছাত্রীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে তার খালাতো ভাই আমিরুল শেখ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শালমারা গ্রামের কালাম শেখের ছেলে আমিরুল ইসলাম তার আপন খালাতো বোন ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর লেখাপড়ার সহযোগিতার ছলে সেখানে যাওয়া আসা করতো। আপন খালাতো ভাই হিসেবে ওই মাদ্রাসার ছাত্রীর অভিভাবকেরা তাকে সরল বিশ্বাস করতো। এই সরলতার সুযোগে সে তার আপন খালাতো বোন ওই মাদ্রাসার ছাত্রীর সাথে মনোবাসনা চরিতার্থ করার জন্য লিপ্ত থাকে। গত ১ ফেব্রুয়ারী বিকেল ৫টার দিকে আমিরুল ওই ছাত্রীর পড়ার রুম বন্ধ করে দিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের ফলে ওই ছাত্রী গর্ভবতী হয়ে পড়লে বিষয়টি সে তার ভাবীর কাছে বিস্তারিত বর্ননা করে। এক পর্যায়ে তার শারিরীক পরিবর্তন হতে থাকলে সে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে তার অভিভাবকেরা মঞ্জুরুলের অভিভাবকদের কাছে যায় সুরাহা করার জন্য। কিন্তু তারা বিষয়টি সমাধান করেনি। গত ২৫ আগস্ট তাকে রাজবাড়ী আদর্শ ক্লিনিকে নিয়ে আসা হলে ডাক্তার জানায় সে বর্তমানে (ওই দিন পর্যন্ত) ২৯ সপ্তাহ ৩দিনের গর্ভবতী। ফলে উপায় না পেয়ে ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে মঞ্জুরুল ইসলামকে আসামী করে আদালতে মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি এফআইআর হিসেবে রেকর্ড করার জন্য বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিলে মামলাটি গত ৪ঠা সেপ্টেম্বর থানায় রেকর্ড হয়। বালিয়াকান্দি থানার মামলা নং-২, ধারাঃ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৯ (১)/১৩।

 

 

আপডেট : শনিবার সেপ্টেম্বর ৬,২০১৪/ ০১:২৮ পিএম/ আশিক

 

 

 


এই নিউজটি 1390 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments