পাংশা মহিলা কলেজের ছাত্রী অপহরণ : একজন গ্রেফতার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:৪৮ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ৭:৪৮ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
পিকচার

পাংশা প্রতিনিধি : পাংশা মহিলা কলেজের এক ছাত্রী অপহরণের ঘটনায় গত ৩রা সেপ্টেম্বর নাসির মোল্লা (৩৫) এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত ৩০ আগস্ট কলেজ থেকে ফেরার পথে ওই কলেজ ছাত্রী অপহৃত হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, কালুখালী উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের আবু সরদারের মেয়ে সম্পা (ছদ্মনাম) পাংশা মহিলা কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রীকে কলেজে আসা যাওয়ার পথে একই উপজেলার কোমরপুর গ্রামের মৃত গফুর মোল্লার ছেলে ফারুক মোল্লা (২৪) প্রেম নিবেদনসহ কু-প্রস্তাব দিতো। বিষয়টি ওই কলেজ ছাত্রীর পিতা ফারুকের অভিভাবকদের কাছে নালিশ করলে তারা ছেলে ধমক শাসন না করে উল্টো তাকেই হুমকি প্রদান করে। এদিকে অভিভাবকদের কাছে নালিশ করায় ফারুক ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং মোবাইলে ওই ছাত্রীকে অপহরণের হুমকি দেয়। এরপর থেকে সম্পাকে তার মা সাথে করে কলেজে আসা যাওয়া করতো। গত ৩০ আগস্ট সম্পার মা শারিরীক অসুস্থতার কারণে তার ফুফু তাকে কলেজে আসে। সম্পাকে কলেজে পৌছে দিয়ে সে বাড়ীতে চলে যায়। দুপুর দেড়টার দিকে সম্পা কলেজ ছুটি শেষে বাইরে এসে তার ফুফুর জন্য অপেক্ষা করাকালে ফারুক ও তার সহযোগিরা সম্পাকে মাইক্রোবাসযোগে জোর পূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ওই কলেজ ছাত্রীর মা আফরোজা খাতুন বাদী হয়ে ৭জনের নামে গত ৩রা সেপ্টেম্বর পাংশা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) ৭/৩০ ধারায় মামলা দায়ের করে।

এ মামলার প্রেক্ষিতে গত ৩রা সেপ্টেম্বর পাংশা থানার পুলিশ ফারুকের ভাই নাসির মোল্লাকে গ্রেফতার করে। তবে মামলার প্রধান আসামী ফারুক গ্রেফতার হয়নি।

 

আপডেট : শনিবার সেপ্টেম্বর ৬,২০১৪/ ০১:৪৭ পিএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1601 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments