পাংশায় পুত্রবধূ সঙ্গীতা হত্যা মামলায় শ্বশুর বিষ্ণুপদ বিশ্বাসকে একদিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:৫১ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ৭:৫১ পূর্বাহ্ণ ,৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : পাংশায় পুত্রবধূ সঙ্গীতা হত্যা মামলায় শ্বশুর বিষ্ণুপদ বিশ্বাসকে (৬০) একদিনের রিমান্ড শেষে গতকাল ৪ঠা সেপ্টেম্বর কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গত ৭ জুন সকালে ১লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবীতে সঙ্গীতাকে নির্যাতন হত্যা করে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ীর লোকজন। নিহত সঙ্গীতা ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী থানার আউটযুগ গ্রামের স্বপন কুমার বিশ্বাসের মেয়ে।

জানা যায়, বিগত ৪ বছর আগে পাংশা উপজেলার নিভা গ্রামে বিষ্ণুপদ বিশ্বাসের ছেলে তুষার কুমার বিশ্বাসের (২৭) সাথে সঙ্গীতা রানীর (২১) বিয়ে হয়। বিয়ের সময় সঙ্গীতার পিতা মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৫ভরি স্বর্নের অলংকার জামাই তুষারকে দেন। এর কিছু দিন পরেই তুষার পিতার বাড়ী থেকে আরো টাকা এনে দেয়ার জন্য সঙ্গীতাকে মারপিট শুরু করে। বিষয়টি সঙ্গীতা তার পিতাকে জানালে সে বিভিন্ন সময়ে তুষারকে ৫ হাজার, ১০ হাজার টাকা করে টাকা দিতো। এরপরও তুষার আরো টাকা এনে দেয়ার জন্য স্ত্রীকে চাপ সৃষ্টি করে। সঙ্গীতার পিতা টাকা দিতে অস্বীকার করলে ইতিপূর্বে তুষার সঙ্গীতাকে মারপিট করে বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেয়। সঙ্গীতা ৩ বছরের শিশু সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে আবারো স্বামীর সংসারে ফিরে যায়। গত ৭জুন সকাল ১০টা দিকে তুষারসহ বাড়ীর লোকজন পিতার বাড়ী থেকে ১লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দেয়ার জন্য সঙ্গীতাকে বলে। টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় তারা সঙ্গীতাকে অমানুষিকভাবে নির্যাতন করে। নির্যাতনের বিষয়টি সঙ্গীতা মোবাইলে তার চাচার কাছে জানায়। সে এও জানায় সে হয়তো বাঁচবে না। এক পর্যায়ে সঙ্গীতা মারা যায়। সঙ্গীতা মারা যাওয়ার পর শ্বশুর বাড়ীর লোকজন বিষপান করে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। এদিকে খবর পেয়ে সঙ্গীতার পরিবারের লোকজন এসে তাকে শ্বশুর বাড়ীর বসতঘরের বারান্দায় মৃত অবস্থায় দেখতে পায়।

এ ঘটনায় সঙ্গীতার পিতা জামাই তুষারসহ তার পরিবারের লোকজনকে আসামী করে পাংশা থানায় গত ৮জুন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ১১ (ক)/৩০ ধারায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ সঙ্গীতার শ্বশুর বিষ্ণুপদ বিশ্বাস গ্রেফতার করে গত ২৬ আগস্ট আদালতে ৫দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ১দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পাংশা থানার পুলিশ গত ৩ রা সেপ্টেম্বর তাকে ১দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল ৪ঠা সেপ্টেম্বর তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এর আগে এ মামলার প্রধান আসামী তুষারকে গ্রেফতার করে পাংশা থানার পুলিশ। বর্তমানে তুষার জেল হাজতে আছে।

আপডেট : শনিবার সেপ্টেম্বর ৬,২০১৪/ ০১:৪৯ পিএম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 1249 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments