বালিয়াকান্দি উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তাসহ ১০জনের বিরুদ্ধে কোর্টে মামলা

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ২:০২ পূর্বাহ্ণ ,১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ২:০২ পূর্বাহ্ণ ,১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : বালিয়াকান্দি উপজেলার বালিয়াকান্দি ইউনিয়নের খোর্দ্দ মেগচামী গ্রামে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখল চেষ্টার অভিযোগে বালিয়াকান্দি উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা খায়রুল বাশার খানসহ ১০জনের বিরুদ্ধে আদালতে ১৪৪ ধারায় মামলা দায়ের হয়।

গত ৩ সেপ্টেম্বর রাজবাড়ী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মিসপি-৪০৪/১৪ মামলাটি দায়ের হয়। খোর্দ্দ মেগচামী গ্রামের আব্দুল মতিন খানের ছেলে আব্দুল আলীম খান মামলাটি দায়ের করেন। আদালত শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বালিয়াকান্দি থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করে পরবর্তী তারিখ ২৪ নভেম্বর ধার্য্য করেছে।

মামলার আসামীরা হলেন ঃ বালিয়াকান্দি উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ও খোর্দ্দ মেগচামী গ্রামের আঃ গফুর খানের ছেলে খায়রুল বাশার খান, একই গ্রামের ইকরাম শেখের ছেলে আসাদুরজামান, ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের মেগচামী গ্রামের মাছিম মোল্যার ছেলে মাজেদ মোল্যা, ছালাম সরদারের ছেলে রোকন সরদার, রইচ সরদারের ছেলে রুবেল সরদার, সৈয়দ সরদারের ছেলে বসির সরদার, ছালাম শেখের ছেলে জামাল শেখ, কাওছার মৃধার ছেলে আলম মৃধা, ওমেদ মোল্যার ছেলে নান্নু মোল্যা,সাইফুল মৃধার ছেলে রিপন মৃধা।

মামলায় প্রকাশ, বালিয়াকান্দি উপজেলার খোর্দ্দ মেগচামী মৌজার বি,এস ৪৪১ ও ৪৪২ খতিয়ানের বিএস ৯৫৯ দাগে ৮২ শতাংশ ও বিএস ৯৬৫নং দাগে ২৮ শতাংশ মোট ১১০ শতাংশ জমি বাদী আব্দুল আলীম খানের পিতা আব্দুল মতিন খান ২০-১১-১৯৯৩ ইং রেজিকৃত ৫৮৯২ কবলা এবং বাদীসহ অপর ৩ ভ্রাতা ২০-১১-১৯৯৩ ইং রেজিকৃত ৫৮৮৯নং কবলা দলিল মুলে খরিদ করে ভোগদখল করে আসছেন। পরে বাদী পক্ষ ৩০ ধারার বিধানমতে নিজেদের নামে বিএস ৪৪২ ও ৪৪১ খতিয়ানে রেকর্ডভূক্ত করেন। গত ২রা সেপ্টেম্বর বালিয়াকান্দি উপজেলা আনছার ভিডিপি কর্মকর্তা ও খোর্দ্দমেগচামী গ্রামের আঃ গফুর খানের ছেলে খায়রুল বাশার খান, একই গ্রামের ইকরাম শেখের ছেলে আসাদুরজামান, ফরিদপুর জেলার মধুখালী উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের মেগচামী গ্রামের মাছিম মোল্যার ছেলে মাজেদ মোল্যা, ছালাম সরদারের ছেলে রোকন সরদার, রইচ সরদারের ছেলে রুবেল সরদার, সৈয়দ সরদারের ছেলে বসির সরদার, ছালাম শেখের ছেলে জামাল শেখ, কাওছার মৃধার ছেলে আলম মৃধা, ওমেদ মোল্যার ছেলে নান্নু মোল্যা,সাইফুল মৃধার ছেলে রিপন মৃধাসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন লোক জোরপূর্বক উক্ত জমি দখলের চেষ্টা চালায়। বাদী দখলের চেষ্টার খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে বাঁধা প্রদান করে। বিবাদীরা চলে যাবার সময় হত্যার হুমকী দেয়। এ হুমকীতে বাদী পক্ষ আতঙ্কিত ও জমি বেদখলের আশঙ্কায় ভুগছে।

মামলার বাদী আব্দুল আলীম খান জানান, আসামীরা একের পর এক ফন্দি ফিকির করে জমি দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তারা এলাকার প্রভাবশালীদের সাথে আতাঁত করে দখল করার চেষ্টাও চালাচ্ছে।

 

আপডেট : শুক্রবার সেপ্টেম্বর ১২,২০১৪/ ০৮:০১ এএম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 1223 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments