দৌলতদিয়ায় আ’লীগ অফিস ভাংচুর মামলায় বিএনপি’র ৩২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে চার্জশীট : ১ জনকে অব্যাহতি : ৮ জনের জামিন মঞ্জুর

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৬:০০ পূর্বাহ্ণ ,২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ণ ,২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ অফিস ভাংচুরের ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে দায়েরকৃত মামলায় গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর ১জনকে অব্যাহতি দিয়ে এজাহারভূক্ত ২৫জন আসামীসহ মোট ৩২জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেছে তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই কামাল হোসেন ভূইয়া। এছাড়াও একই দিন এ মামলায় গ্রেফতারকৃত ৮জন আসামীর জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

চার্জশীটভূক্ত আসামীরা হলো ঃ বিএনপি নেতা মোঃ আব্দুল হালিম ফকির(৩৮), সুলতান নুর ইসলাম ওরফে মুন্নু মোল্লা(৫০), শহিদ পাল(৩৫), আইয়ুব খান(৪০), ইয়াহিয়া খান(৩২), ফরিদ খান(২৫), রাসেল বেপারী(২৪), জাহিদ ওরফে আমবাবু(৩৫), বাহা সরদার(৪০), মজনু(৪০), রেজাউল সরদার(২৫), হোসেন শেখ(২৫), ফরিদ শেখ(৩৫), ফজল শেখ(২৫), গাফফার খা (৩০), সোহাগ মিয়া(৩৫), সাইদ শেখ(৩৫), আক্কাস সরদার(৪০), সামছু মাতুব্বার(৩৫), রতন সরদার(২৫), জাহাঙ্গীর সরদার(২৮), আবুল কালাম শেখ(৪৫), ইসমাইল মন্ডল(৩৫), আফছার(২৮), বাচ্চু খা(৪২), জাহাঙ্গীর সরদার(৩০), ফজলু শেখ(৩০), রোকন বেপারী(৩৫), হাসেম কাজী(৪৫), হেলাল খান(৩২), তালেব বেপারী ও মজিবর রহমান ওরফে মজি(৪৫)। তদন্তে অব্যাহতি প্রাপ্ত আসামী হলো দৈনিক ভোরের পাতা প্রতিনিধি বিএনপির সমর্থক সাংবাদিক আবুল মোল্লা(৪০)।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়ালন্দ ঘাট থানার এস.আই কামাল হোসেন ভূইয়া চার্জশীটে উল্লেখ করেন, গত ১৪ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উল্লেখিত আসামীরা দৌলতদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ অফিসে অতর্কিতভাবে দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে আতংক ও ভয়ভীতি এবং ত্রাস সৃষ্টি করে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি এবং অফিসের রক্ষিত বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করে। এ ঘটনায় স্থানীয় ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার মোল্লা বাদী হয়ে গত ১৪ সেপ্টেম্বর ২৬জনের নাম উল্লেখ করে ২০০২ সালের আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন(দ্রুত বিচার) আইনের ৪/৫ ধারায় গোয়ালন্দ থানায় মামলা নং-১১ দায়ের করে। মামলায় অজ্ঞাত আরো ২৫/৩০জনকে আসামী করা হয়। এ ঘটনার সাথে সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য প্রমাণ না পাওয়ায় এজাহারভূক্ত আসামী আবুল মোল্ল¬াকে মামলা হতে অব্যাহতি প্রদান করে এজাহারভূক্ত ২৫জনসহ মোট ৩২জনকে অভিযুক্ত করে গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশীট প্রদান করা হয়। এরআগে এ মামলায় পর্যায়ক্রমে ইসমাইল মন্ডল ওরফে ইসমাইল প্রামানিক, জেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও গোয়ালন্দ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুলতান নুর ইসলাম মুন্নু মোল্লা, স্থানীয় বিএনপি নেতা করিম পালের ছেলে শহিদ পাল, দক্ষিণ দৌলতদিয়া ঘোনাপাড়ার জামান সরদারের ছেলে জাহাঙ্গীর সরদার, শাহাদৎ মেম্বারপাড়ার রফিকুল ইসলামের ছেলে রাসেল বেপারী ও চর দৌলতদিয়ার রোকন বেপারী, ফজলু শেখ ও হাশেম কাজীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়।

আদালত সুত্র জানায়, গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপি সমর্থিত সিনিয়র আইনজীবি এডঃ এমএ খালেক, এডঃ শহিদ উদ্দিন পনু, এডঃ আসাদুজ্জামান লাল, এডঃ এম.এ গফুর, এডঃ এবিএম ছাত্তার, জেলা বারের সেক্রেটারী এডঃ কাজী আব্দুল বারী, এডঃ নুরুল ইসলাম ও জেলা বারের জয়েন্ট সেক্রেটারী এডঃ আব্দুল হাকিম খান গ্রেফতারকৃত উল্লেখিত ৮আসামীর বিরুদ্ধে সুনিদির্ষ্ট কোন প্রমান না থাকায় আদালতে তাদের জামিনের প্রার্থনা করেন। দ্রুত বিচার ট্রাইবুন্যালের বিচারক জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাসির উদ্দীন উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কোন অভিযোগ না থাকায় তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

 

 

আপডেট : বুধবার সেপ্টেম্বর ২৪,২০১৪/ ১১:৫৯ এএম/ আশিক

 

 

 

 


এই নিউজটি 1212 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments