দৌলতদিয়া ঘাটে কোরবানির পশুবোঝাই শত শত ট্রাক আটকা

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ ,১ অক্টোবর, ২০১৪ | আপডেট: ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ ,১ অক্টোবর, ২০১৪
পিকচার

গোয়ালন্দ প্র্রতিনিধি : ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে গাড়ির চাপ বেড়ে যাওয়ায় আজ বুধবার দৌলতদিয়া ঘাটে নদীপার হওয়ার অপেক্ষায় আটকা পড়ে কোরবানীর পশু বোঝাই শত শত ট্রাক। এতে তিন কিলোমিটার রাস্তায় ট্রাকের দীর্ঘ সারি সৃষ্টি হয়ে আছে। এদিকে প্রচন্ড গরমের মধ্যে গরু, মহিষসহ বিভিন্ন কোরবানির পশু নিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা সিরিয়ালে আটকে থাকায় গরুর বেপারিসহ সংশ্লিষ্ট ট্রাকের চালকরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

আজ বুধবার দুপুরে দৌলতদিয়াঘাট সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের ক্যানেলঘাট পর্যন্ত তিন কিলোমিটার ফোরলেন রাস্তার একপাশে দুই লাইনে কোরবানির পশুবোঝাই শত শত ট্রাকের দীর্ঘ সারি। বিভিন্ন ট্রাকচালক ও গরুর বেপারিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে দেশের দক্ষিনাঞ্চলের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা থেকে গরু, মহিষসহ বিভিন্ন কোরবানির পশু নিয়ে তারা ঢাকার গাবতলী হাটে যাচ্ছেন। পথে সামান্য নদীপথ পাড়ি দিতে দৌলতদিয়া ঘাটে এসে তাদের ট্রাকগুলো দীর্ঘ সিরিয়ালে আটকা পড়েছে। তবে পশু বোঝাই ওই ট্রাকগুলো কখন ফেরির নাগাল পাবে তাও কেউ বলতে পারেননি।

এদিকে প্রচন্ড গরমের মধ্যে ঘন্টার পর ঘন্টা সিরিয়ালে আটকে থাকায় ট্রাকের উপরে থাকা অনেক গরু ও মহিষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। ঘাটসংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, ঘাটের গুরুত্ব বিবেচনায় বর্তমান এই নৌরুটে প্রয়োজনীয় সংখ্যক রো রো (বড়) ফেরি নেই। এ কারণে স্বাভাবিক পারাপার ব্যাহত হচ্ছে।

বিআইডাব্লিউটিসির দৌলতদিয়াঘাট ব্যাবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ফেরির বহরে বর্তমান ৯টি রো রো (বড়), ৩টি কে-টাইপ (ছোট) ও ৬টি ইউটিলিটি ফেরি রয়েছে। এর মধ্যে চন্দ্রমল্লিকা ও হাসনাহেনা নামে দুটি ইউটিলিটি ফেরি বিকল হয়ে আছে। তিনি আরো জানান, এই নৌরুটে ফেরির সংকট নেই। তবে ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে ঢাকাগামী পশুবোঝাই ট্রাকের চাপ অনেক বেড়ে যাওয়ায় দৌলতদিয়াঘাটে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

 

 

আপডেট : বুধবার অক্টোবর ০১,২০১৪/ ‌০৫:৪০ পিএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1222 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments