শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে রাজবাড়ীর ঈদ-পূজার বাজার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৯:২৬ পূর্বাহ্ণ ,২ অক্টোবর, ২০১৪ | আপডেট: ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ ,২ অক্টোবর, ২০১৪
পিকচার

নিজস্ব প্রতিবেদক : মুসলিম সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা’র আর মাত্র তিন দিন বাকি আর হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিন মহা অষ্টমী আজ। ঈদ ও পূজা একসাথে হওয়ায় রাজবাড়ী শহরের মার্কেটগুলোতে পড়েছে কেনাকাটার ধুম। জমে উঠেছে শেষ মূহূর্তের কেনাকাটা।

সরকারি আধা সরকারি ও স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরতরা বেতন বোনাস পেয়েছেন বেশ কয়েকদিন আগেই। ফলে অনেকেই ঊর্ধ্বশ্বাসে মার্কেটে ছুটছেন শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা করার জন্য।

বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী শহরের ছোট-বড় শপিং সেন্টার ও বিপণী বিতানগুলোতে দেখা গেছে ঈদ ও পূজার আমেজ। হাতে সময় বেশি না থাকায় শহরবাসী সাধ্য অনুযায়ী টাকা পয়সা নিয়ে বেরিয়ে পড়েন ঘর থেকে। বাবা-মায়ের সঙ্গে বাদ যায়নি পরিবারের ছোট শিশুটিও। সকলের উদ্দেশ্য অভিন্ন, সাধ্যমত কিছু কেনাকাটা। সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলে এ কেনাকাটা।

রাজবাড়ী শহরের কাদেরীয়া সুপার মার্কেট, সাহা সুপার মার্কেট,কাজী প্লাজা আল-জুপ কালেকশন, ইত্যাদি ফ্যাশন, বিউটি ক্লথ স্টোর, ঢালি গার্মেন্টস, জান্নাতুল ফ্যাশন , রাজবাড়ী বস্ত্রবিতান, মাম প্লাস, খালেক বস্ত্রবিতান সহ বাজারের বিভিন্ন দোকান ও বিভিন্ন বিপণী বিতানগুলোতে এই দৃশ্য চোখে পড়ে। নানা রং এবং বাহারি ডিজাইনের থরে থরে সাজানো পোশাকে বিপণী বিতানগুলো ঠাঁসা। সাধ ও সাধ্যের মিল রেখে পছন্দের দোকানগুলোতে ঢু মারছেন ক্রেতারা। কিনছেন দরদাম কষে। দোকানিরাও ব্যস্ত ক্রেতাদের সামাল দিতে। বর্তমানে কাপড়ের দোকান ও গার্মেন্টস দোকানগুলোতে সবচেয়ে বেশী ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এর পাশাপাশি জুতা ও কসমেটিকস দোকানগুলোতেও বেচাকেনা ভালো হচ্ছে।

অন্যদিকে, রাতভর সেলাই মেশিনের খটখটানিতে মুখর রয়েছে শহরের দর্জি-দোকানগুলো। রাত-দিন সমান তালে চলছে পোশাক তৈরীর কাজ। সময়মত পোশাক সরবরাহ নিশ্চিত করতে ১৫দিন আগেই শেষ করেছেন অর্ডার নেয়া। ফলে ভিড় বেড়েছে শাড়ি ও তৈরী পোশাকের দোকানগুলোতে। বাহারি ডিজাইনের শাড়ি এবং তার সাথে ম্যাচ করে অন্যান্য জিনিসপত্র কেনার জন্য ব্যস্ত ক্রেতারা ছুটছেন এক মার্কেট থেকে অন্য মার্কেটে।
ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে ততই জমজমাট হয়ে উঠেছে শহরের ফুটপাতের ঈদ বাজারও। সকাল থেকে মধ্যরাত সেখানে চলছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের হাঁক-ডাক, বেচাকেনা।রাজবাড়ী শহরের ফলবাজার সংলগ্ন স্থানে অবস্থিত অস্থায়ী দোকানগুলোতেও লক্ষ্য করা গেছে উপচে পরা ভির ।নিম্ন আয়ের লোকজন এসব দোকানের ক্রেতা।

শেষ মুহূর্তে শহরের আতর, টুপি, তৈরী পোশাক বিশেষ করে প্যান্ট, শার্ট, শিশুদের পোশাক, পাঞ্জাবি, শাড়ি, লুঙ্গি, জুতা, স্যান্ডেল, সাজ-সজ্জার সামগ্রী, অন্তর্বাস, টয়লেট্রিজ সামগ্রী, স্প্রে, সেন্ট, রুমাল, টুপি, গামছা, তোয়ালে, বেডশিট, সেমাই, মসলার বাজারে ভিড় লেগেই আছে।

ক্রেতা-বিক্রেতা কারোরই যেন দম ফেলার এতটুকু ফুরসত নেই। ঈদের দিন সকাল পর্যন্ত চলবে এই কেনাবেচা।

 

 

আপডেট : বৃহস্পতিবার অক্টোবর ০২,২০১৪/ ‌০৩:২১ পিএম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 1204 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments