শ্রমবাজার খুলে দিতে আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূতকে তারেক রহমানের চিঠি

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৫:৪৪ অপরাহ্ণ ,১৬ অক্টোবর, ২০১৪ | আপডেট: ৬:০৭ অপরাহ্ণ ,১৬ অক্টোবর, ২০১৪
পিকচার

রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম : বাংলাদেশি নাগরিক ও শ্রমিকের ভিসা সমস্যা সমাধান, শ্রমবাজারে আরো বাংলাদেশী দক্ষ জনশক্তি নিয়োগ এবং বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগের অনুরোধ জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান আমিরাতের বৈদেশিক মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আহমেদ আব্দুল রহমান আল জারমানের কাছে চিঠি প্রেরণ করেছেন। চিঠির প্রথমে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে আমিরাতের অবদানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তারেক রহমান।

তারেক রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট ও আবুধাবির শাসক খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান, আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও দুবাইয়ের শাসক মহামান্য শেখ মোহাম্মাদ বিন রাশিদ আল মাকতুমের কাছে এযাবত বাংলাদেশের প্রতি অব্যাহত সহায়তা প্রদানের জন্য অন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

তারেক রহমান শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান আমিরাতের সাথে যে মজবুত সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন সেটি উল্লেখ করে জানান, আমিরাত ও বাংলাদেশ দুটি ভাতৃপ্রতিম দেশ। এই দুটি মুসলিম দেশের ভেতরে সম্পর্কের ভিত্তি গড়ে উঠেছিল প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের হাত ধরে। এই সম্পর্কের বন্ধন আরো দৃঢ় ও মজবুত করে তোলার জন্য বাংলাদেশ থেকে আরো শ্রমিক নিয়োগের উদাত্ত আহবান জানান বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান।

চিঠিতে বাংলাদেশে অধিক বিনিয়োগের ব্যাপারে তিনি আহবান জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল আমিরাতের বিনিয়োগকে সবসময়ই স্বাগত জানিয়ে আসছে। এটি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক বুনিয়াদকে আরও মজবুত করবে। ভবিষ্যত বিএনপির সরকার বাংলাদেশের সাথে আমিরাতের বৃহত্তর দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অঙ্গীকার মেনে চলবে বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলোর সাথে বিএনপির ধারাবাহিক সম্পর্ক উন্নয়নের ব্যাপারে তার অঙ্গীকার পুন:ব্যাক্ত করেছেন। তিনি দৃঢ়বিশ্বাস পোষণ করেন যে, আমিরাত সরকার আমিরাতের বসবাসরত বাংলাদেশীদের যাবতীয় সমস্য সমাধানে সর্বাত্মক সহযোগীতা করবে। সম্পর্ককে আরও নিকটতম করার লক্ষ্যে নিকট ভবিষ্যতে আমিরাত সফরের ব্যাপারে আশা পোষণও করেন বাংলাদেশের বর্তমান সময়ের প্রিয় নেতা তারেক রহমান।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক দূত এনামূল হক চৌধুরী উক্ত চিঠির একটি কপি বাংলাদেশে নিযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূতের কাছে বৃহস্পতিবার সকালে হস্তান্তর করেন।

সূত্র জানায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের এ চিঠি আচমকা কোন বিষয় নয়। মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের শ্রমিকদের সুযোগ সুবিধা ও কল্যাণ নিশ্চিত করার জন্য গত কয়েক মাস ধরে সচেষ্ট ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন। সম্প্রতি তারেক রহমানের বিশেষ উপদেষ্টা হুমায়ন কবির লন্ডনে মাহামান্য শেখ মোহাম্মাদ বিন মাকতুম আল মাকতুমের সাথে দেখা করে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের শ্রমিকেদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন। সবশেষ এ চিঠি তারই ধারাবাহিকতা। যেখানে তিনি বাংলাদেশের সাথে বিদ্যমান সুসম্পর্ককে আরো গাঢ় করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

আমিরাত বাংলাদেশের অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী দেশ। এই দুইদেশের ভেতরে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও শ্রমবাজার কেন্দ্রীক সমস্যা সমাধানের জন্য জনাব তারেক রহমানের এই চিঠি যুগান্তকারী হবে বলে অভিজ্ঞমহল অত্যান্ত গুরুত্বের সাথে নিচ্ছেন।

 

 

আপডেট : বৃহস্পতবিার অক্টোবর ১৬,২০১৪/ ‌১১:৩৮ পিএম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 1138 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments

More News from রাজনীতি