দৌলতদিয়ায় মোবাইল কোর্টে ৩ মাদক ব্যবসায়ীর ৬মাসের কারাদন্ড

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ ,২১ অক্টোবর, ২০১৪ | আপডেট: ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ ,২১ অক্টোবর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী কালেক্টরেটের এনডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জামিরুল ইসলাম গতকাল ২০ অক্টোবর বিকেলে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া বাজার এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানকালে ৪শত গ্রাম নিষিদ্ধ গাঁজাসহ আটককৃত ৩জন মাদক ব্যবসায়ী মোঃ শাজাহান(৪৫), কোরবান(৩৫) ও শাজাহান শেখ (৪৩)কে ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(১) টেবিলের ১-ক ধারায় প্রত্যেককে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। অভিযান শেষে জব্দকৃত গাঁজা দৌলতদিয়া বাজারের শমশেরের হোটেলের পিছনে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ধ্বংস এবং দন্ডিতদের জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

এ ছাড়াও অভিযানকালে দৌলতদিয়া বাজার এলাকার নূরী বেগম নামের একজন নারী মাদক ব্যবসায়ীর বসত ঘর থেকে প্লাস্টিকের কৌটার মধ্যে রাখা ৩ গ্রাম হেরোইন জব্দ করা হয়। অভিযানকালে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত নূরী বেগম ও তার ছেলে পান্না লাল পালিয়ে যাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়।

মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজবাড়ী সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ আমিরুজ্জামানের নেতৃত্বে বিভাগীয় স্টাফগণসহ একদল ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্য এনডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জামিরুল ইসলামের মোবাইল কোর্টকে সহযোগিতা করেন।

পরিদর্শক মোঃ আমিরুজ্জামান জানান, দন্ডিত শাজাহান উত্তর দৌলতদিয়া বাস টার্মিনাল এলাকার মৃত অহেদ আলী মন্ডলের ছেলে, কোরবান দৌলতদিয়া নতুন পাড়ার মৃত কালু মিয়ার ছেলে এবং শাজাহান শেখ দৌলতদিয়া কাজী পাড়ার কুদ্দুস শেখের ছেলে। অভিযানকালে পর্যায়ক্রমে শমশেরের হোটেলের পিছন থেকে ১০০ গ্রাম ওজনের ১০ পোটলা গাঁজাসহ শাজাহানকে, দৌলতদিয়া বাজারের মন্দিরের সামনের রাস্তা থেকে ২০০ গ্রাম ওজনের ২০ পোটলা গাঁজাসহ কোরবানকে এবং দৌলতদিয়ার বাজারের কাঁচাবাজারের একটি তরকারীর দোকানের সামনে থেকে শাজাহান শেখকে গ্রেফতার করা হয়।

 

 

আপডেট : মঙ্গলবার অক্টোবর ২১,২০১৪/ ‌০৯:৩৫ এএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1119 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments