,

রাজবাড়ীতে রেললাইনে ট্রাককে ট্রেনের ধাক্কা, চালক-হেলপার নিহত

News

রাজবাড়ী : রাজবাড়ীতে ট্রেন ও মাটিবাহী একটি ড্রাম ট্রাকের সংঘর্ষে ট্রাকের চালক ও হেলপার নিহত হয়েছেন। এসময় গুরুতর আহত হয়েছেন এক পথচারী। দুর্ঘটনায় ট্রেনের ইঞ্জিন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এই রেল রুটে সোয়া তিন ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) বিকেল সোয়া ৩টার দিকে সদর উপজেলার বসন্তপুর স্টেশন বাজার সংলগ্ন কামাল মিয়ার ইটভাটার সামনে রেল লাইনে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন— রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের চর খানখানাপুর গ্রামের ইউছুফ শেখের ছেলে পলাশ শেখ (৩০) ও একই ইউনিয়নের সরদারপাড়া গ্রামের দুলালের ছেলে মিলন (৪০)। তাদের মধ্যে পলাশ ওই ট্রাকের চালক ও মিলন ট্রাকটির হেলপার।

দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির নাম বাবলু মোল্লা (৫৫)। তিনি বসন্তপুর ইউনিয়নের বড় ভবানীপুর গ্রামের মৃত আনছের মোল্লার ছেলে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বসন্তপুর স্টেশন বাজার সংলগ্ন কামাল মিয়ার ইটভাটার সামনে ভাটার ট্রাকগুলো রেললাইন পার করার জন্য লাইনের ওপর মাটি ও খোয়া দিয়ে অবৈধ একটি রেল ক্রসিং রাস্তা বানিয়েছে ভাটা কর্তৃপক্ষ। বিকেল সোয়া ৩টার দিকে ইটভাটার মাটিবাহী ড্রাম ট্রাকটি ওই রেল ক্রসিং পার হচ্ছিল। এ সময় ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে রাজশাহীগামী মধুমতি ট্রেনটি ওই স্থানে পৌঁছালে রেল লাইনের মাঝখানে থাকা ট্রাককে ট্রেনটি ধাক্কা দেয়।

ট্রাকটি দুমড়ে-মুচড়ে ছিটকে এসে রেল লাইনের পাশের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়া পথচারী বাবলু মোল্লার ওপর এসে পড়ে। স্থানীয়রা ট্রাকের চালক পলাশ, হেলপার মিলন ও পথচারী বাবলু মোল্লাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে নেওয়ার পর পলাশ ও মিলন মারা যান। বাবলু মোল্লা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ আলম জানান, দুর্ঘটনায় ট্রেনের ইঞ্জিন ও সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রেল কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে ট্রাকের মালিক ও ইটভাটা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবে। মরদেহ দু’টি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে থাকায় সেখানকার থানা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। পরবর্তী আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর